অনলাইন ক্লাসে যেভাবে মনযোগ ধরে রাখবেন

কোরোনা ভাইরাসে বিপর্যস্ত সবকিছু সেই সাথে বিপর্যস্ত শিক্ষা ব্যবস্থা। জীবন যেমন থেমে নেই তেমনি থেমে নেই পড়ালেখার মাধ্যম গুলোও। শুরু হয়েছে অনলাইন ক্লাস। যারা বাসায় থাকেন তারা অবশ্যই জানেন যে বাসায় যে কোন কাজে মনযোগ ধরে রাখা কঠিন কাজ। নানা ধরণের কাজ এসে পরে বা মনযোগ হারায় এমন অনেক অবস্থার সৃষ্টি হয়। যদি আপনি নিজে শিক্ষার্থী হন তাহলে কিভাবে মনযোগ ধরে রাখবেন বা আপনি যদি অনলাইনে ক্লাস করে বা করবে এমন কারো অভিভাবক হন তাহলে কিভাবে সেই শিক্ষার্থীর মনযোগ অনলাইন ক্লাসে ধরে রাখতে কিভাবে সাহায্য করবেন তা নিয়েই আমাদের আজকের আলোচনা।

১. ক্লাসের আগেই প্রস্তুত হনঃ আপনার যদি আগামীকাল অনলাইন ক্লাস থেকে থাকে আর আপনি যদি মনে করেনে যে অনলাইন ক্লাসইতো আমাকেতো চেহারা ছাড়া কেউ দেখছেনা এত প্রস্তুতি নেওয়ার কি আছে তাহলে আপনি ভুল করছেন কারণ ক্লাসে মনযোগ হারানোর অন্যতম কারণ হল এটি। অনলাইন ক্লাসে মনযোগ ধরে রাখতে হলে আপনি পূর্বে স্কুলে যাওয়ার সময় যে রুটিন অনুসরণ করতেন তাই করতে হবে। ভোরে ঘুম থেকে উঠুন, ফ্রেশ হন। নাস্তা সেরে সম্পূর্ণ প্রস্তুত হয়ে যান। এভাবে আপনার এনার্জি লেভেল ভালো থাকবে।

২. যেখানে ক্লাস করছেন সেই জায়গাটা প্রস্তুত করুনঃ ধরুন আপনি টেবিলে বসে ক্লাস করেন। তাহলে সেই টেবিলটা পরিষ্কার করুন। আপনার মনযোগে বিঘ্ন ঘটে এমন জিনিস টেবিলে রাখবেন না। টেবিল হবে ঝকঝকে পরিষ্কার যেন তা দেখলেই আমাদের মন ফ্রেশ থাকে। টেবিল হবে বিছানা থেকে দুরে। আশেপাশে অন্যকোন ডিভাইস রাখা যাবেনা। টেবিলটা হওয়া উচিত কোলাহল কম থাকে এমন এক জায়গায়।

৩. অনলাইন ক্লাসের জন্য যেসব টেকনোলজী ব্যবহার করছেন তা আপডেট করুনঃ ধরুন আপনি যে ডিভাইস দিয়ে ক্লাস করছেন তা যদি ক্লাস থেকে বারবার ডিসকানেক্ট হয়ে যায় তাহলে এটা স্বাভাবিক যে তাতে আপনার মনযোগ থাকবে না। ভালো সার্ভিস দেয় এমন ডিভাইস ব্যবহার করুন। ভালো নেটওয়ার্ক নিশ্চিত করুন যে লাইভ আটকে না থাকে।

৪. নিজেকে ফাঁকি দেবেন নাঃ ধরুন আপনার প্রফেসর আপনাকে দেখছেনা। আর আপনি ফেসবুক ব্যবহার করছেন। ক্ষতি কি আপনার প্রফেসরের না আপনার? তাহলে আপনি নিজেকেই ফাকি দিচ্ছেন। তাই আপনার অনলাইনে অন্য কোন কাজ থাকলে তা সেরে ক্লাসে সময় মত জয়েন করুন। অনলাইন ক্লাসকে গুরুত্ব দিন কারণ এভাবেই চলবে আরো অনেক দিন।

৫. জানার কিছু থাকলে প্রশ্ন করুনঃ ব্যাপারটা এমন না যে আপনি আপনার প্রফেসর বা বন্ধুদের দেখতে পারছেন না তাই বলে বুঝতে না পারলেও চুপ থাকবেন। কোনো কিছু না বুঝলে প্রশ্ন করুন। এটাও স্বাভাবিক। আপনার শিক্ষক জানেন শিক্ষার্থীদের কোথায় সমস্যা হওয়া স্বাভাবিক। তাই না বুঝলে প্রশ্ন করুন।

সর্বোপরি, আপনি যদি নিজে শিক্ষার্থী হন তাহলে উপরের স্টেপগুলো ফলো করুন। আর আপনি অভিভাবক হলে আপনার সন্তানের জন্য উপরোক্ত সুবিধাগুলো নিশ্চিত করুন। তাকে লক্ষ্য করুন যে সে ক্লাসের সময় অন্য কোথাও মনযোগ দিচ্ছে কিনা। ধন্যবাদ।

Leave a Comment