রেজিস্টরের কালার দেখে রোধ নির্ণয়

রেজিস্টরের গায়ে বিভিন্ন রঙের ব্যান্ড থাকে। এই রংগুলোর মধ্যমে রেজিস্টরের রেজিস্টেন্স নির্ধারন করা হয়। নিচে দুটি কালার চার্ট দেওয়া রয়েছে। এই চার্টে কতগুলো রং দেওয়া রয়েছে যার প্রত্যেকটি কিছু অঙ্কের প্রতিনিধিত্ব করে। আর এই অঙ্কগুলোই রোধ নির্ণয়ে সাহায্য করে। এর জন্য সূত্র হল:

  • তিন ব্যান্ড: ১ম ও ২য় অঙ্কx১০৩য় অঙ্ক অর্থাৎ ABx10C
  • চার ব্যান্ড: ১ম ও ২য় অঙ্কx১০৩য় অঙ্ক ± ৪র্থ অঙ্ক অর্থাৎ ABx10C ± %D
  • পাঁচ ব্যান্ড: ১ম, ২য় ও ৩য় অঙ্কx১০৪র্থ অঙ্ক ± ৫ম অঙ্ক অর্থাৎ ABCx10D ± %E

এখানে সংখ্যাগুলো শুধু পাশাপাশি বসবে। অর্থাৎ A এর যায়গায় ১ম অঙ্ক, B এর যায়গায় ২য় অঙ্ক এরকম ভাবে।

একটি তিন ব্যান্ড রেজিস্টরের রোধ নির্ণয়:

কালার চার্ট তিন ব্যান্ড রেজিস্টর

প্রথম ব্যান্ডটি প্রথম এবং দ্বিতীয় ব্যান্ডটি দ্বিতীয় নম্বরটির প্রতিনিধিত্ব করে। উপরের ছবিতে প্রথম রং অনুযায়ী প্রথম অঙ্ক ১ এবং দ্বিতীয় রং অনুযায়ী দ্বিতীয় অঙ্ক ০ হয়। অবশেষে তৃতীয় ব্যান্ডটি গুণক বা মাল্টিপ্লাইয়ার যার মান ১০ বা ১০০০। সুতরাং রোধকটির(রেজিস্টর) রোধ হয়, ABx10C

১০x১০ ওহম = ১০০০০ ওহম

চার এবং পাঁচ ব্যান্ড রেজিস্টর:

কালার চার্ট চার এবং পাঁচ ব্যান্ড রেজিস্টর

একটি চার ব্যান্ড রোধকের রোধ নির্ণয় করতে:

প্রথম ব্যান্ডটি প্রথম সংখ্যাটির প্রতিনিধিত্ব করে এবং দ্বিতীয় ব্যান্ডটি দ্বিতীয় নম্বরটির প্রতিনিধিত্ব করে। উপরের ছবি অনুয়ায়ী প্রথম অঙ্কটি ৫ এবং দ্বিতীয় সংখ্যাটি ৬ এবং তৃতীয় ব্যান্ডটি গুণক বা মাল্টিপ্লায়ার। পরিশেষে, চতুর্থ ব্যান্ড টলারেন্স* এর প্রতিনিধিত্ব করে সুতরাং প্রতিরোধক প্রতিরোধ হয়, ABx10C ± %D

৫৬x১০ ± ৫% = ৫৬x১০০০০ ± ৫% = ৫৬০০০০ ± ৫%

একটি পাঁচ ব্যান্ড রোধকের রোধ নির্ণয় করতে:

প্রথম ব্যান্ডটি প্রথম সংখ্যাটির প্রতিনিধিত্ব করে, দ্বিতীয় ব্যান্ডটি দ্বিতীয় সংখ্যাটির প্রতিনিধিত্ব করে এবং তৃতীয় সংখ্যাটি তৃতীয় সংখ্যাটির প্রতিনিধিত্ব করে। উপরের ছবি অনুযায়ী প্রথম অঙ্ক ২, দ্বিতীয় অঙ্ক ৩ এবং তৃতীয় সংখ্যা ৭. তৃতীয় ব্যান্ডটি গুণক বা মাল্টিপ্লায়ার। পরিশেষে, চতুর্থ ব্যান্ড টলারেন্স* এর প্রতিনিধিত্ব করে। সুতরাং প্রতিরোধক প্রতিরোধ হয়, ABCx10D ± %E

২৩৭x১০± ১০% = ২৩৭০০০ ± ১০%

টলারেন্স – রেজিস্টরের নির্ধারিত মান হতে সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন বিচ্যুতিকে টলারেন্স বলে।

Leave a Comment