প্রিমিয়ার লীগের প্রথম জয় আর্সেনালের

 

প্রিমিয়ার লীগের প্রথম জয় আর্সেনালের

গত মৌসুমে ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগে ২-০ গোলে হেরে ছিলো। তারা কোনো ভাবেই চায়নি এবারও তেমন হোক। আর এ সিজনে এমনটা হয়ও নি কারণ মিকেল আর্তেতার খোলোয়াড়েরা আর্সেনাল কে  প্রিমিয়ার লিগের ৩০ তম মৌসুমে শুক্রবার ক্রিস্টাল প্যালেসকে ২-০ গোলে হারিয়েছে।

গত বছরের মৌসুমের উদ্বোধনী রাতে ব্রেন্টফোর্ডে গানাররা - গোলে পরাজিত হয়েছিল, যা ৬৭ বছরের জন্য লিগ অভিযানে তাদের সবচেয়ে খারাপ শুরু ছিলো। কিন্তু এবার তারা তাদের প্রি-সিজন ফর্মকে কাজে লাগিয়েছে কারণ গ্যাব্রিয়েল মার্টিনেলির প্রথমার্ধে হেডার এবং দেরীতে মার্ক গুইহির নিজের গোলে আর্সেনালকে জিতিয়েছে।

গত সিজনে এই পরাজয়ের ফলে মৌসুমের শেষ ১০ টি খেলায় পাঁচটি পরাজয়ের ফলে আর্সেনাল প্রিমিয়ার লিগের শীর্ষ চারে জায়গা নিতে পেরেছিলো। গত ছয় মৌসুম ধরে তারা চার নাম্বার পজিশনেই থেকে যাচ্ছে লীগ টেবিলে।

কিন্তু আর্সেনাল বোর্ড আর্টেটার প্রতি আস্থা রেখেছে এবং স্প্যানিয়ার্ডকে ১০০ মিলিয়ন পাউন্ডের বেশি দিয়ে ট্রান্সফার মার্কেটে খরচ করতে সহায়তা করেছে। সেন্টার-ফরোয়ার্ডের প্রয়োজনীয়তা পূরণ করতে গ্যাব্রিয়েল জেসুসকে কিনেছে তারা। জেসুস এই সিজনে আর্সেনালের সাইনিং করা সেরা প্লেয়ার এবং এই ব্রাজিলিয়ানের অভিষেকটাও প্রায় দূর্দান্ত হতে যাচ্ছিলো। খেলা শুরুর চার মিনিটেই গোল পেতে পারতেন জেসুস।

জেসুস ক্রিস্টাল পেলেসে ডিফেন্সের মধ্য দিয়ে ভেতরে ঢুকে গিয়ে ছিলেন এবং যখন তার প্রাথমিক প্রচেষ্টাকে ব্লক করতে পেরেছিল পেলেস,ফিরতি বলে মার্টিনেলির শট লক্ষ্যে থাকেনি। উদ্বোধনী কোয়ার্টারে আর্সেনালের বল দখলের পজিশন বেশি ছিলো, কিন্তু ব্রেকথ্রু আসে সেট-পিস থেকে।

আর্সেনালের হয়ে আরেক প্লেয়ারের অভিষেক হয়েছে, ওলেক্সান্ডার জিনচেঙ্কো তার নেওয়া নিখুত কর্নারে এবং মার্টিনেলির হেডারে প্যালেস গোলকিপার ভিসেন্তে গুয়াইতাকে পরাস্ত করে এবং গোল আদায় করে নেন মার্টিনেলি।

ক্রিস্টল প্যালেস দ্বিতীয়ার্ধে দারুণভাবে ম্যাচে ফিরে আসে কিন্তু গোল বারের সামনেই তাদের ব্যর্থতা ফুটে উঠেছে । আর্সেনাল দ্বিতীয়ার্ধে পাল্টা আক্রমণে খুব একটা যায় নি, প্যালেস সেন্টার-ব্যাকের হেডার নিজেদের জালে উড়ে যাওয়ায় বুকায়ো সাকার দেওয়া ক্রস তার ইংল্যান্ড সতীর্থ গুয়েহিকে লেগে নিজেদের জালে জড়িয়ে যাওয়া আর্সেনাল ২-০ এ ম্যাচ জিতে যায়।

0 মন্তব্যসমূহ